1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৬:১১ অপরাহ্ন

মামুনুল হককে উদ্ধার করে নিয়ে গেছে হেফাজতের কর্মীরা

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:
  • শনিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ৫১৫
মামুনুল হককে উদ্ধার করে নিয়ে গেছে হেফাজতের কর্মীরা

অবশেষে সোনারগাঁও রয়েলে রিসোর্ট এর হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে অবরুদ্ধ মামুনুল হক ও তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে নিয়ে গেছে হেফাজতের শত শত কর্মী।  হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ন-মহাসচিব মামুনুল হককে দ্বিতীয় স্ত্রীসহ অবরুদ্ধ করে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার খবরে হেফাজতের কয়েকশত লোকজন মাগরিবের নামাজের পর রয়েল রিসোর্টে হামলা চালায়। 

এদিকে হেফাজতের লোকজনের আসার খবরে পাালিয়ে গেছে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা। ভেতরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন সোনারগাঁও উপজেলা ইউএনও আতিকুল ইসলাম, এসিল্যান্ড মোস্তফা মুন্নাসহ প্রশাসনের লোকজন।

 এসময় কয়েকশত হেফাজত কর্মী ম্লোগান দিয়ে সোনারগাঁও থানা ঘেরাও করতে চাইলে মামুনুল হক একটি হ্যান্ড মাইকে তাদের শান্ত হতে বলেন। এবং আইন নিজের হাতে তুলে নিতে বারন করেন। তিনি বলেন, আমি প্রমান করবো আমার সাথে আমার দ্বিতীয় স্ত্রী। তাছাড়া স্ত্রীকে নিয়ে আমি যেখানে সেখানে ঘুরতে যেতে পারি। কিন্তু ছাত্রলীগ-যুবলীগের উচ্ছৃংখল লোকজন আমাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে। অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করেছে। আমি আইনগতভাবেই বিষয়টি দেখবো।

পেরে হেফাজতের লোকজন মামুনুল হক ও তার স্ত্রীকে নিয়ে বিক্ষোভ করতে করতে মোগরাপাড়া হাবিব পুর ঈদগাঁও মাঠে জমায়েত হয়। সেখানে হেফাজতের নেতারা বক্তব্য রাখার পর রাত সোয়া ৮টার দিকে একটি মাইক্রোবাসে মামুনুল হক তার স্ত্রীকে তুলে দেন। তারা ঢাকার দিকে চলে গেছেন।

 

এদিকে পুলিশ দাবী করেছে, তারা মামুনুল হককে ছেড়ে দিয়েছেন। আর হেফাজতের নেতাকর্মীরা বলছেন তারা জিম্মিদশা থেকে মামুনুল হককে উদ্ধার করে তাদের হেফাজতের নিয়ে গেছেন। বরং হেফাজতের হাজার হাজার লোকজনের কাছে অসহায় ও অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে প্রশাসন।

আরও পড়ুন :হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মামুনুল হক সোনারগাঁয়ে দ্বিতীয় স্ত্রীসহ অবরুদ্ধ

জানা গেছে, শনিবার (৩ এপ্রিল) দুপুরের পর হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মামুনুল হক তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে রয়েল রিসোর্ট এর ৫০১ নাম্বার রুমে উঠেন।

 খবর পেয়ে  স্থানীয় ছা্ত্রলীগ ও যুবলীগের কিছু নেতাকর্মী ওই ‍রুমে জোরপুর্বক ঢুকে মামুনুল হককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে অবরুদ্ধ করে রাখেন। তারা মামুনুলহককে অশ্লীলভাষায় গালমন্দ করেন। তার স্ত্রীকে নিয়েও কুরুচিপুর্ন মন্তব্য করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। 

 

আরও পড়ুন :সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে হেফাজতের হামলা, ভাংচুর

এদিকে মামুনুল হক দাবী করেছেন তার সাথের নারী তার দ্বিতীয় স্ত্রী। বার বার তিনি কথাটি বললেও বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা তার কথায় পাত্তা না দিয়ে বিয়ের কাবিন দেখতে চান। মামুনুল হক বলেন তিনি ইসলামী শরীয়া মতে দুই বছর আগে  দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন। কিন্তু কে শোনে কার কথা।

 

ওদিকে হেফাজতের দাবী পরিকল্পিতভাবে ছাত্রলীগ-যুবলীগ মিডিয়াকে খবর দিয়ে এনে ন্যাক্কারজনক ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

 

 

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart