1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ১০:২৬ পূর্বাহ্ন

মেঘের মতো ধুলায় আচ্ছন্ন নারায়নগঞ্জ-ঢাকা পুরাতন সড়ক

নারায়ণগঞ্জ টাইমস
  • মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৫২
মেঘের মতো ধুলায় আচ্ছন্ন নারায়নগঞ্জ-ঢাকা পুরাতন সড়ক

এক সময়ে রাজধানী ঢাকার সাথে নারায়নগঞ্জে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ছিল (ঢাকা-নারায়নগঞ্জ) ফতুল্লার পুরাতন এই সড়কটি। ঢাকা নারায়নগঞ্জ লিংক রোডটি নির্মানের পর পুরাতন এই সড়কটি যেন ঝিমিয়ে পড়েছে। তবে আমদানি রপ্তানির ক্ষেত্রে এই সড়কটি গুরুত্ব রয়েছে।

তাছাড়াও এই সড়কটি দিয়ে হাজার হাজার পথচারি, যাত্রী ও মালবাহী যানবাহন যাতায়াত করে। এদিকে এই সড়কটির দুপাশে রয়েছে বেশ কিছু স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

কিন্তু ধূলাবালির কারনে এই সড়কটিতে প্রতিনিয়ত মানুষ ও যানবাহন চলাচলে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ দূরবস্থা দেখার যেন কেউ নাই। ধূলাবালির জন্য মনে হয় এটি একটি আজব নগরী।

সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে রাস্তার দুপাশে গড়ে উঠেছে অবৈধ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। অপরদিকে রাস্তায় খানাখন্দের কারনে লেগে থাকে দীর্ঘ যানজট।

জানাগেছে ফতুল্লার শিল্প নগরী বিসিক এলাকায় রয়েছে কয়েকশত শিল্প প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানে প্রায় কয়েক হাজার শ্রমিক জীবিকা নির্বাহ করে।

এছাড়াও পাগলার মুন্সিখোলাতে গড়ে উঠেছে রড সিমেন্ট দোকান রয়েছে রি-রোলিং মিলস। এছাড়াও বক্তাবলী, দাপা, পাগলায় রয়েছে ইট ভাটা। এসব মালামাল আনা নেওয়ার জন্য এই সড়কটিই ব্যবহার করছেন।

এছাড়া ফতুল্লা পঞ্চবটি এলাকা থেকে মুক্তারপুলে যাতায়াতের একটি মাএ মাধ্যম ছিল পুরাতন এই সড়কটি। তবে নব্বই দশকের দিকে পোস্তগোলা ব্রিজ নির্মানের পর ঢাকার সাথে মুন্সিগঞ্জের যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো সুগম হয়।

১৯৯৫ সালের দিকে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ রোডের নির্মান কাজ সম্পূর্ন হলে দ্রুত যাতায়াতে এই সড়কটি আরো জনপ্রিয় হয়ে উঠে। মূলত তারপর থেকে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ ( পাগলা) পুরাতন সড়কটিতে আর উন্নয়নের ছোঁয়া তেমন একটা হয়নি।

এদিকে সরজমিনে গিয়ে দেখাগেছে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ পুরাতন সড়কটিতে ধুলার কারনে দিনের বেলায় কুয়াশায় আবহ। ধুলাবালির কারনে পথচারিরা নাভিশ্বাস হয়ে উঠেছে। সবচাইতে বেশী সমস্যায় ভোগছে চলাচলরত যাএীরা।

তবে এই সড়কটির দুপাশে ধুলার আস্তরন জমে থাকলেও তা অপসারনের দায়িত্ব যেন নেই সড়কটির তদারকিতে থাকা পরিবেশ ও জনপথ বিভাগের। তবে মাঝে মাঝে এই সড়কটি মেরামত করা হলে ও পুনরায় পূর্বের রুপ ধারন করে। তাই জনসাধারণের দূর্ভোগ লাগবে কর্তৃপক্ষের আশু দৃষ্টি কামনা করছেন বৃহওম পাগলা ফতুল্লাবাসী।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart