1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

নারায়ণগঞ্জ বার নির্বাচন: যে গুঞ্জন সর্বত্র

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • বুধবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৪৯
নারায়ণগঞ্জ বার নির্বাচন: যে গুঞ্জন সর্বত্র

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন বৃহস্পতিবার। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহন। ১৭টি পদের জন্য আওয়ামীলীগ ও বিএনপি দুটি প্যানেল থেকে ৩৪জন প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। এবার শুরু থেকেই দুটি প্যানেলের সমর্থনে শীর্ষ নেতারা ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নেমেছেন। বিএনপি সমর্থিত হুমায়ুন-কামাল প্যানেলকে উজ্জীবিত করতে কেন্দ্র থেকে নারায়ণগঞ্জে ছুটে এসেছেন একাধিক শীর্ষ নেতা। অন্যদিকে কেন্দ্র থেকে কেউ না আসলেও নারায়ণগঞ্জ-৪ ও ৫ আসনের দুই প্রভাবশালী সংসদ সদস্য পূর্ণ সমর্থন দিয়েছেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত মোহসিন-মাহবুব প্যানেলকে।

এদিকে জয়ের ব্যাপারে দুটি প্যানেলই আশাবাদী। প্রচার-প্রচারণায় কমতি ছিল না দুটি প্যানেলের। দিনরাতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়েছেন। দিয়েছেন নানা প্রতিশ্রুতি। প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে বিশদাগারও হয়েছে সমানতালে। কেউ কাউকে ছাড় দেয়নি। তবে টানটান উত্তেজনার মধ্যে শেষ পর্যন্ত কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শেষ হয়েছে সব ধরনের প্রচারনা। এখন অপেক্ষা ফলাফলের। নানা হিসেব নিকেষ চলছে।

নির্বাচন ঘিরে সাধারণ আইনজীবীরা বলছেন, উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় আওয়ামীলীগ এবারও শক্তিশালী প্যানেল দিয়েছে। আর  নির্বাচনে গণতান্ত্রিক ধারা বজায় রাখতে বিএনপি প্যানেল দিয়েছে। দুটি প্যানেলেই নবীন-প্রবীনের সমন্বয় রয়েছে। প্রার্থীদেরও ভোটার কাছে পরিচিতি রয়েছে। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কি হয়।

যদিও বিএনপি সমর্থিত সরকার হুমায়ুন কবির ও কামাল হোসেন প্যানেলের বক্তব্য হচ্ছে ফলাফল যা-ই হোক গণতান্ত্রিক নির্বাচন ব্যবস্থা বজায় রাখার জন্য আমরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করছি। আমরা চাই সুস্ঠ ভোট। সুস্ঠ ভোটে ফলাফল যা-ই হোক আমরা মেনে নিবো। প্রভাব-বিস্তার করে ফলাফল কারো পক্ষে নিয়ে যাবে এটা আমরা হতে দিবো না। সাধারণ ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সে জন্য আমরা নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে লিখিত দাবি জানিয়েছি
সভাপতি প্রার্থী সরকার হুমায়ুন কবির জানান, সুষ্ঠ ভোট হলে আমরা বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ।

ওদিকে আদালতপাড়ার গুঞ্জন পুরো জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে। এবার কি নেতৃত্বে পরিবর্তন আসবে নাকি ধারাবাহিকতা। কারণ গত ৩ বছর ধরে বারের নেতৃত্ব দিয়ে আসছে আওয়ামীলীগ সমর্থিত আইনজীবীরা। এরমধ্যে বারের দৃশ্যমান উন্নয়ন চোখে পড়ার মতো। বিশেষ করে আধুনিক বার ভবন। যা সাধারণ আইনজীবীদের মন জয় করেছে। তাই সাধারণ আইনজীবীরা বলছেন, আমরা চাই আইনজীবী সমিতির উন্নয়ন। বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের ১২’শ আইনজীবীর স্বপ্নের ডিজিটাল বার ভবন নির্মাণ কাজ চলমান। ইতিমধ্যে দোতলা ভবনের কাজ প্রায় শেষের দিকে। সম্মানজনক একটি জায়গায় বসে আইন পেশা পরিচালনার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন বর্তমান কমিটি। নেতৃত্বের ধারাবাহিকতা বজায় না থাকলে ভবনের উন্নয়ন থমকে যেতে পারে। তাই উন্নয়নের স্বাথে ধারাবাহিকতাই ভালো।

তাছাড়া সাধারণ আইনজীবীদের মতে, আদালতপাড়ায় বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ মোহসীন মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান। যে কারণে এবারও তাদের উপরই আস্থা রেখেছেন নীতি নির্ধারণী আইনজীবী নেতারা। করোনাকালীন পরিস্থিতিতে সাধ্যমত অসহায় আইনজীবীদের পাশেও দাঁড়িয়েছে মোহসিন-মাহবুব নেতৃত্ব। বিশেষ করে তরুণ ভোটারদের প্রিয় মুখ মোহসিন মিয়া। ভদ্র নম্র, মিশুক ও পরিচ্ছন্ন নেতা হিসেবে আদালতপাড়ায় তার পরিচিতি রয়েছে।

অন্যদিকে একজন সাদামাটা আইনজীবী হিসেবেই সুখ্যাতি রয়েছে মাহবুবুর রহমানের।  সিনিয়র আইনজীবীদের সঙ্গে তিনি বেশ সম্মানসূচক আচরণ করেন। সকলের সঙ্গে তিনি সুসম্পর্ক রেখেই আদালতপাড়ার রাজনীতি ও সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। যে কারণে সাধারণ আইনজীবীদের মাঝে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন মাহবুবুর রহমান।

এর আগে টানা দুইবার সেক্রেটারি ছিলেন মোহসীন মিয়া। একইভাবে সাধারণ সম্পাদক পদে মাহবুবুর রহমানও দায়িত্ব পালন ছাড়াও একবার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে ছিলেন। সবমিলিয়ে সভাপতি ও সেক্রেটারি পদে জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আস্থা রেখেছেন আওয়ামীলীগের আইনজীবী নেতারা। তারা পূর্ণ প্যানেলের জয় নিয়ে জোরালো আশাবাদী।

 

দুই প্যানেলে যারা

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি পদে মুহাম্মদ মোহসীন মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক পদে মাহবুবুর রহমান প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। নির্বাচনে সিনিয়র সহসভাপতি পদে বিদ্যুৎ কুমার সাহা, সহসভাপতি পদে বরুণ চন্দ্র দে, যুগ্ম সম্পাদক পদে রবিউল আমিন রনি, কোষাধ্যক্ষ পদে মনিরুজ্জামান কাজল, আপ্যায়ন সম্পাদক পদে মো. স্বপন ভূঁইয়া, লাইব্রেরী সম্পাদক পদে মাহমুদুল হক মমিন, ক্রীড়া সম্পাদক পদে সাজ্জাদুল হক সুমন, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক পদে মোহাম্মদ আসাদুর রহমান বিপ্লব, সমাজ সেবা সম্পাদক পদে ইসরাত জাহান ইনা ও আইন ও মানবাধিকার সম্পাদক পদে নুসরাত জাহান তানিয়াকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। সদস্য পদে মনোনীত পাঁচজন হলেন: রোমানা আক্তার, আবু তাহের তালুকদার, কামরুল হাসান, সিরাজুল হক মিলন ও শরিফুল ইসলাম।

বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রার্থী অ্যাড. সরকার হুমায়ুন কবীর ও সাধারণ সম্পাদক পদে অ্যাড. কামাল হোসেন মোল্লা। প্যানেলের অন্য প্রার্থীরা হলেন: সিনিয়র সহসভাপতি পদে অ্যাড. মানিক মিয়া, সহসভাপতি অ্যাড. আনোয়ারুল আলম রিপন, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. সালাহউদ্দিন ভূইয়া সবুজ, কোষাধ্যক্ষ জাহিদুল ইসলাম মুক্তা, আপ্যায়ন সম্পাদক জাহিদুর রহমান, লাইব্রেরি সম্পাদক অ্যাড. মোহসীন মিয়া, ক্রীড়া সম্পাদক গোলাম সারোয়ার, সাহিত্য সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. সারোয়ার জাহান, সমাজসেবা সম্পাদক আসমা হেলেন বিথি, আইন ও মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম। সদস্য পদে লড়ছেন: মোস্তাফিজুর রহমান শুক্কুর মাহমুদ, হাবিবুর রহমান, আসিয়া সুলতানা জেমী, হাফিজুর রহমান মাসুদ ও জামান হোসেন।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart