1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন

শীতলক্ষ্যার তীরে বাঁধার পর নতুন করে সীমানা পিলার স্থাপনের কাজ শুরু

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৯০
নারায়ণগঞ্জে বিআইডব্লিউটিএ’র তত্ত্বাবধানে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে নতুন করে সীমানা নির্ধারণ পিলার স্থাপনের কাজ চলমান রয়েছে। শনিবার (৩ অক্টোবর) দুপুরে সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার গোদনাইল মৌজায় এ কাজ তদারকি করতে কয়েকটি এলাকা পরিদর্শন করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের উপ-সচিব ও নির্বাহী ম্যাজিষ্টেটসহ বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তারা। এর আগে শুক্রবার গোদনাইল এলাকায় সীমানা পিলার স্থাপন কাজে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা বাধা দেয়। যে কারণে শনিবার ভ্রাম্যমান আদালতসহ কর্মকর্তারা সেখানে যান।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দরের যুগ্ম-পরিচালক শেখ মাসুদ কামাল, উপ-পরিচালক মোবারক হোসেন, সহকারি পরিচালক এহতেশামুল পারভেজসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।
এছাড়া কোস্টগার্ড, থানা পুলিশ, নৌ-পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগিতা করে। পরে বিরোধপূর্ণ তিনটি স্থান এসিআই কারখানা, ওয়াসার পানি শোধনাগার এবং কোঅপারেটিভ শিল্প সংস্থার অভ্যন্তরে ১৫টি সীমানা পিলারের বোরিং স্থাপন করা হয়।
নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের উপ সচিব ও নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট মো: মাহবুব জামিল জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিআইডব্লিউটিএ’র কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। পূর্বে যেসকল সীমানা পিলার স্থাপন করা হয়েছিল সেগুলোর বেশীরভাগ নিয়েই আপত্তি ছিল। বর্তমানে উচ্চ আদলতের নির্দেশ অনুযায়ী নদীকে রক্ষা করার জন্য গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম (জিপিএস) পদ্ধতিতে সিএস জরিপ মোতাবেক নতুন করে সীমানা পিলার স্থাপন করা হচ্ছে। যেসব জায়গায় ত্রুটিপূর্ণ পিলার রয়েছে সেসব জায়গাগুলোতে সীমানা পূণ:নির্ধারণ করে জিপিএস পদ্ধতিতে নতুন করে পিলার স্থাপন করা হচ্ছে।
বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম-পরিচালক শেখ মাসুদ কামাল জানান, পূর্বে স্থাপন করা ৫ হাজার ১১টি সীমানা পিলার নিয়ে আপত্তি থাকায় গণপূর্ত বিভাগ থেকে সেগুলো গ্রহণ করা হয়নি। তাই উচ্চ আদালতের নির্দেশে জিপিএস পদ্ধতিতে ধলেশ^রী ও শীতলক্ষ্যার উভয় তীরে ১০০ ফুট দূরত্ব রেখে পাইলিংয়ের মাধ্যমে নতুন করে ২ হাজার ৪০০ সীমানা পিলার বসানো হবে।
তিনি আরো জানান, অত্যাধুনিক পদ্ধাতিতে নির্মিত প্রতিটি পিলার উচ্চতায় ১০ ফুট এবং ৫ ফুট বাই ৫ ফুট বেস হচ্ছে। পিলারগুলো কমপক্ষে ১০০ বছর স্থায়ীত্ব হবে এবং কেউ উঠিয়ে নিতে পারবে না। এরই মধ্যে শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব তীরে মদনগঞ্জ থেকে রামনগর পর্যন্ত শতাধিক নতুন সীমানা পিলার স্থাপন করা হয়েছে বলে বিআইডব্লিউটিএ’র এই কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart