1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৯:১৯ পূর্বাহ্ন

যে কারণে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করে নরপশুরা

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪০৫

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশ পুর এলাকায় গৃহবধূ (৩৫) কে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয় নরপশুরা। মুহুর্তের মধ্যে সেই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর তোলপাড় শুরু হয় সারাদেশ। ঘটনার নায়কদের গ্রেপ্তারে পুলিশ ও র‌্যাবের বেশ কয়েকটি টিম মাঠে নামে। গ্রেপ্তার করা হয় ঘটনার মূলহোতাসহ ৪জনকে। গ্রেপ্তারকৃত ৪ জন হলেন, একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের জয়কৃঞ্চপুর গ্রামের খালপাড় এলাকার হারিদন ভূঁইয়া বাড়ির শেখ আহম্মদ দুলালের ছেলে মো. আবদুর রহিম (২০) ও রাতে একই এলাকার মোহর আলী মুন্সি বাড়ির মৃত আবদুর রহিমের ছেলে মো. রহমত উল্যাহকে (৪১) গ্রেপ্তার করা হয়।  এছাড়া রোববার দিবাগত রাত ২টা থেকে ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-১১ মামলার প্রধান আসামী নুর হোসেন ওরফে বাদল (২৩) ও দেলোর বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার হোসেন (২৬)।

রোববার (৪ অক্টোবর) রাতে ওই নির্যাতিতা গৃহবধূ বাদী হয়ে ৯জনকে আসামি করে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় দুটি মামলা করেন। একটি মামলা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে, অন্যটি পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে। দুই মামলাতেই ৯জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারের ওই নারী অভিযোগ করেছেন, তাঁর স্বামীকে বেঁধে রেখে আসামিরা তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। তাঁরা এ ঘটনার ভিডিওচিত্র ধারণা করেন। গত এক মাস ধরে তাঁরা এই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার কথা বলে তাঁকে অনৈতিক প্রস্তাব দিচ্ছিলেন। তিনি এই অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাঁরা ফেসবুকে ভিডিওটি ছেড়ে দেন।

ঘটনার সূত্রপাত:

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থানার একলাশপুর ইউনিয়নের এক সদস্য বলেন, ওই নারীর ১৮ বছর আগে বিয়ে হয়। তাঁর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করায় কয়েক বছর আগে তিনি বাপের বাড়ি চলে আসেন। তাঁর এক ছেলে ও মেয়ে আছে। মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। বাড়িতে ওই নারী ছেলে ও এক ভাইয়ের সঙ্গে থাকতেন। সম্প্রতি তাঁর স্বামী তাঁর কাছে আসা-যাওয়া করতে শুরু করেন। এ নিয়ে দেলোয়ার বাহিনী আপত্তি জানিয়ে সেদিন ওই নারীকে নির্যাতন করেন। ঘটনার দিন ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই নারী তাঁর স্বামীর সঙ্গেই ছিলেন। নির্যাতনকারীরা তাঁর স্বামীকেও আটক করে নিয়ে যায়। পরে ওই নারীর ভাই ১ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে তাঁকে ছাড়িয়ে আনেন। ওই নারীর মা নেই। বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র থাকেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব যা বলেছে

এদিকে র‌্যাব-১১ জানিয়েছে  কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
সোমবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীতে র‌্যাব-১১ এর সদরে প্রেস ব্রিফিংয়ে কোম্পানী অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল খন্দকার সাইফুল আলম বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার দুই আসামি ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। আমরা প্রথমে রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোড মোড়ে একটি যাত্রীবাহী বাসে তল্লাশী চালিয়ে দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার হোসেন (২৬)কে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করি। আমাদের কাছে তথ্য ছিল বাসযোগে দেলোয়ার ঢাকার দিকে আসছিল। তাই চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন বাসে তল্লাশী চালানো হয়। এরমধ্যে একটি বাসের যাত্রীদের নামিয়ে তল্লাশী করার এক পর্যায়ে দেলোয়ার বাস থেকে নেমে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে সন্দেহ হলে তাকে আটক করি। এবং পরে নিশ্চিত হই সে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলার আসামী দেলোয়ার। তার দেহ তল্লাশী করে একটি বিদেশী পিস্তুল, একটি ম্যাগজিন ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। এরপর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার কামরাঙ্গীচর থেকে মামলার প্রধান আসামি নুর হোসেন ওরফে বাদল (২৩)কে গ্রেপ্তার করি।’
খন্দকার সাইফুল আলম বলেন, ‘এই দেলোয়ার বাহিনী এলাকায় চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসাসহ নানা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত। এবং দেলোয়ার এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তাদের ভয়ে এলাকার লোকজন ভীত সন্ত্রস্ত। দেলোয়ারের বিরুদ্ধে ইতোপূর্বে দুটি হত্যা মামলা আছে।
র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেপ্তারকৃত বাদলকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ ও দেলোয়ারকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হবে।

 

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart