1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:২৭ অপরাহ্ন

বন্দরে সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যা : আদালতে ঘাতকের দায় স্বীকার

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৯৮

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে দৈনিক বিজয় পত্রিকার সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেন খুনের ঘটনায় দোষ স্বাকীর করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তীমূলক জবান বন্দি দিয়েছেন মামলার প্রধান আসামি তুষার। বুধবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ুন কবীরের আদালতে তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। জবানবন্দি শেষে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
এর আগে গত ১২ অক্টোবর ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত তুষারের ৩ দিনের রিমাণ্ড মঞ্জুর করে। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিতে রাজি হয় বলে জানিয়েছে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আজগর হোসেন।
তিনি বলেন, কেন এবং কি কারণে ইলিয়াসকে সে হত্যা করেছে এবং আরও কারা ঘটনার সাথে জড়িত তার বিশদ বর্ননা দিয়েছে সে আদালতে। এছাড়া তুষার সাংবাদিক ইলিয়াসকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে সেটাও সে বলেছে। আমাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তুষার জানিয়েছে পুঞ্জিভূত ক্ষোভ থেকে সে ইলিয়াসকে হত্যা করে। এগুলো হলো, একই এলাকায় পাশাপাশি বসবাস ছিল সাংবাদিক ইলিয়াস ও তুষারদের। ২০১৮ সালে মাদক বিক্রির বাধা দেয়ায় শামীম নামে এক যুবকের সঙ্গে তুষারের ঝগড়া হয়। ওইসময় তুষার লাঠি দিয়ে শামীমের মাথায় আঘাত করলে গুরুতর আহত হয় শামীম। এ ঘটনায় তুষারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে শামীম। আর সেই মামলা করতে সাংবাদিক ইলিয়াস উস্কানি দিয়ে ছিল ধারণা তুষারের। এছাড়াও এলাকায় অবৈধ গ্যাস লাইনের সংযোগ দেওয়ায় টাকা নিয়ে তুষার, ইলিয়াস, মাসুদ সহ আরো কয়েকজনের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এসবের জের ধরেই সাংবাদিক ইলিয়াসকে হত্যা করা হয়।’

প্রসঙ্গত ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী তাওলাদ হোসেন বলেন, রাত ৯টায় জিওধারা চৌরাস্তা থেকে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে বাড়ির দিকে ফিরছিলেন ইলিয়াছ। বাজারে আগে থেকেই মাদক ব্যবসায়ি তুষার, তার ছোট ভাই তুর্যসহ তাদের বেশ কিছু সহযোগি অবস্থান করছিল। ইলিয়াছকে দেখেই তুষার অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। সেদিকে কান না দিয়ে ইলিয়াছ বাসার দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু কিছু বুঝে উঠার আগেই হঠাৎ করেই তুষার পেছন থেকে দৌড়ে গিয়ে ইলিয়াছকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। এক পর্যায়ে তার পেট ও বুকে ছুরিকাঘাত করলে ইলিয়াছ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ দেড়শ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্থানীয় একটি সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানায়, কিছুদিন পূর্বে তুষার মাদকসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়। এজন্য তুষার ও তার পরিবার ইলিয়াছকে সন্দেহ করছিল। এরা এলাকায় অবৈধ ভাবে গ্যাস সংযোগের সঙ্গেও জড়িত। তাছাড়া ঘাতক তুষারের বাবা জামান এলাকায় ফেন্সিডিলের ব্যবসা করতো। বাবার দেখানো পথেই ওই এলাকার তুষার ও তার ভাই তুর্য মাদক ব্যবসা করে।
এ ঘটনায় নিহত ইলিয়াছে স্ত্রী জুলেখা বাদী হয়ে ৮জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হলো- তুষার (২৮), মিন্নাত আলী (৬০) ও মিসির আলী (৫৩)। আর পলাতক রয়েছে হাসনাত আহমেদ তুর্জয় (২৪), মাসুদ (৩৬), সাগর (২৬), পাভেল (২৫) ও হযরত আলী (৫০)।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2018narayanganjtimes
Customized By NewsSmart