1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬:২৮ অপরাহ্ন

বন্দরে ডিশ ব্যবসার নিয়ন্ত্রন নিয়ে খান মাসুদ ও দুলাল গ্রুপের সংঘাত, ড্রেজারে আগুন

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • রবিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৮৮

 নারায়ণগঞ্জের বন্দরে ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ক (ডিশ) ব্যবসার নিয়ন্ত্রন নিয়ে যুবলীগ নেতা খান মাসুদ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কাউন্সিলর দুলাল প্রধান সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের ঘটনায় একপক্ষ অপরপক্ষের ড্রেজারে অগ্নিসংযোগসহ বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর চালিয়েছে। ওই সময় হামলাকারিদের বাধা দিতে গিয়ে মহিলাসহ ২ জন জখম হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে বন্দরের খানবাড়ি এলাকায়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ক্যাবল টিভি ব্যবসা নিয়ে কয়েকদিন ধরেই স্থানীয় ডিশ ব্যবসায়ী শ্যামল, শাহনেওয়াজ খান, পারভেজ খানের সাথে মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু এবং ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধানের সমর্থকদের মাঝে দ্বন্ধ চলে আসছিল।
বন্দর ফাড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মাসুদ জানান, শনিবার গভীর রাতে শ্যামল গংয়ের হাসান (২২) ও সাব্বির (২৪) নামের ২ ডিশকর্মীকে বিন্দুর কর্মীরা মারধর করার সময় পুলিশ ২ কর্মীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ নিয়ে রোববার সকালে উভয় পক্ষের লোকজন থানায় গেলে সহকারী পুলিশ সুপার ( খ-সার্কেল) উভয় পক্ষকে মদনপুর ইষ্ট টাউনে তার কার্যালয়ে ডাকেন। শ্যামল গংয়ের আত্মীয় জেলা যুবলীগ নেতা খান মাসুদসহ কয়েকজন সহকারী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে বিয়য়টি মীমাংসায় বসেন।
এ সময় যুবলীগনেতা খান মাসুদ বলেন, যে সকল ব্যবসায়ীরা ৩০ বছর যাবত এালাকায় ক্যাবল ব্যবসা করে আসছেন তাদের পেটে লাথি মারতে দলের অনুপ্রবেশকারীরা ডিশ বাবুর লাইন বন্দরে ঢুকানোর পায়তারা করছে। আমি সার্কেল অফিসে থাকাবস্থায় ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দুলাল প্রধানের ভাই রিপন প্রধান, সুমন প্রদান, ব্রবসাযী কুদ্দুস, ভাগ্নি অপু ও বাঘা ফয়সালসহ ৪০/৫০ জনের একটি সংগবদ্ধ দল আমার বাড়িতে হামলা করে, একটি মটর সাইকেল ভাংচুর করে আমার বড় বোন স্বপ্না (৪৫) ও আসিফ (২৫) কে মারধর করে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চেয়ে মামলা করব।
হাসনাত রহমান বিন্দু বলেন, শনিবার রাত ১০টায় খবর পেলাম কে বা কারা লেজারাস্ এলাকা হতে আমার স্থাপিত ক্যাবল নেটওয়র্কের মেশিন ও তার কেটে নিয়ে গেছে। গভীর রাতে দেওয়ানবাড়ি এলাকা হতে আমার মেশিন চুরি ও তার কাটার সময় আমি পারভেজ মিয়ার ২ কর্মীকে হাতে নাতে আটক করে পুলিশকে খবর দেই।
২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দুলাল প্রধান বলেন, শনিবার রাতে খান মাসুদের লোক রাজুর নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসী কবরস্থান রোডে আমার সকল তার এবং অফিস সংলগ্ন মেশিন রুম হতে মেশিন লুট করে নিয়ে যায়। কিছুক্ষন আগে আমার একটি ড্রেজার জ¦ালিয়ে দিয়েছে। পাইপের ক্ষতি সাধন করেছে। এতে প্রয় ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়েছে। আমি মামলা করব। পাতলা রাজুর নেতুত্বে কিশোর বন্দরে প্রকাশ্যে অস্ত্র উচিয়ে ঘুরে বেড়ায়।
এ ব্যাপরে বন্দর থানার অফিসাস্ ইনচার্জ ফখরুদ্দীন ভূঁইয়া জানান, ডিশ ব্যবসা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। যুবলীগনেতা খান মাসুদ,তার চাচা রোকনউদ্দিন খানের বাড়িতে হামলার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ করেছে। উর্ধতন কর্তৃপক্ষ উভয় পক্ষকে নিয়ে সমঝোতা করবেন বলে তিনি জানান।্
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রাত ৮ টা এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart