1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:১৪ অপরাহ্ন

নব্বই পরবর্তী সেই নায়িকারা

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৯৪

বাংলা সিনেমার কথা উঠলেই, সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয় নব্বই দশক নিয়ে। কারণ এই সময়টা সিনেমার সবচেয়ে সফল সময়। রমরমা ছিলো হলগুলো। প্রায় প্রতিটা সিনেমাই ব্যবসায়ীকভাবে সফল হতো। আর এই সময় থেকেই আগমন ঘটে একের পর এক নায়িকার। তবে তাদের মধ্যে কে কেমন করলেন?

নব্বই দশকের অন্যতম প্রধান জনপ্রিয় ও ব্যস্ত নায়িকার নাম বললে প্রথমেই যার কথা আসে- তিনি শাবনূর। এই নায়িকা দীর্ঘ সময় ঢাকাই চলচ্চিত্রে রাজত্ব করে গেছেন। যদিও এখন সিনেমা থেকে একটু দূরে রয়েছেন তিনি। তবে, একেবারে সিনেমা ছেড়ে দেননি। প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক এহতেশাম পরিচালিত ‘চাঁদনী রাতে’ দিয়ে চলচ্চিত্রে পথচলা শুরু শাবনূরের। সেই থেকে এই সময় পর্যন্ত সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়িকাদের অন্যতম তিনি।

নব্বই দশকে মুক্তি পাওয়া আলোচিত সিনেমা ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’। এই সিনেমা দিয়ে আগমন। একটি সিনেমা করার পর থেকে তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। একটার পর একটা সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। পেয়েছেন সফলতা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ নানা পুরস্কার পেয়েছেন। তিনি হলেন মৌসুমী। সিনেমায় এখনো সরব মৌসুমী। তিনি টিভি অনুষ্ঠানসহ নানাভাবেই নিজেকে কিছুটা হলেও আলোচনায় রেখেছেন।

জনপ্রিয়তার দিক থেকে পূর্ণিমাও অনেক এগিয়ে। গত বিশ বছর ধরে ঢাকাই সিনেমায় নায়িকা হিসেবে অভিনয় করছেন তিনি। অনেক জনপ্রিয় সিনেমা রয়েছে তার ক্যারিয়ারে। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ দিয়ে পূর্ণিমার অভিষেক ঘটে সিনেমা জগতে। তারপরের ইতিহাস সবারই জানা। তার ক্যারিয়ারেও রয়েছে অনেক ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র। অবশ্য গত কয়েকবছর সিনেমা থেকে দূরে ছিলেন তিনি। ব্যস্ত ছিলেন নাটক, মডেলিং ও উপস্থাপনা নিয়ে। পূর্ণিমা আবারো সিনেমায় সরব হয়েছেন। ‘জ্যাম’ ও ‘গাঙচিল’ নামের নতুন দুটি সিনেমায় অভিনয় করছেন তিনি। এ দুটির কাজ অনেকটাই শেষ করেছেন।

টানা বিশ বছর ধরে নায়িকা হিসেবে কাজ করছেন পপি। এই নায়িকা তিনবার জিতেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। বিশ বছর আগে ‘আমার ঘর আমার বেহেশত’ দিয়ে দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। তারও রয়েছে অনেক জনপ্রিয় সিনেমা। দীর্ঘ অভিনয় ক্যারিয়ারে শুধু সিনেমাই করেছেন পপি। এই সময়েও পপি ব্যস্ত রয়েছেন ‘সাহসী যোদ্ধা’,‘সেভ লাইফ’ এবং ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ নিয়ে।

নব্বই দশকের আরেক আলোচিত নায়িকা শাবনাজ, ‘চাঁদনী’ দিয়ে সিনেমা জগতে যাত্রা শুরু করেছিলেন। এটি ছিলো নব্বই দশকের শুরুর দিকে একটি আলোচিত সিনেমা। এরপর তিনি অনেক সিনেমায় নায়িকা হিসেবে কাজ করেছেন। সালমান শাহর সঙ্গেও তিনি বেশ কয়েক সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন। এখন তিনি সিনেমা থেকে দূরে রয়েছেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা সিমলাও এখন কম সিনেমা করছেন। অবশ্য এবছর সিমলা ভারতের একটি হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। আরেক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা নিপুনও সিনেমা কম করছেন। সিমলা ও নিপুন এক সময় অনেক সিনেমা করেছেন।

নব্বই দশক পরবর্তী নায়িকাদের মধ্যে একসময় ব্যস্ত নায়িকা ছিলেন কেয়া। এখন তাকে সিনেমায় খুবই কম দেখা যায়। নানা কারণে তিনি সমালোচিত হয়েছেন।

নায়িকা শাহনূর ‘হাজার বছর ধরে’ সিনেমায় অভিনয় করে আলোচনায় এসেছিলেন। তিনি এখন সিনেমা করছেন, তবে সংখ্যায় খুবই কম। নায়িকা বর্ষা বেশ কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করে আলোচনায় ছিলেন। তিনি নায়ক অনন্ত’র স্ত্রী। সিনেমায় অভিনয় করছেন না বললেই চলে।

বেশ কয়েকটি সিনেমা করেছিলেন শাকিবা। এখন তাকে সিনেমায় দেখা যায় না। জনা নামের আরেকজন নায়িকা বেশকিছু সিনেমা করলেও এখন তিনি প্রবাসী। শাবজান ও তামান্না ঢাকাই সিনেমার আরও দুই নায়িকা, যারা নব্বই পরবর্তী সিনেমায় এসেছিলেন। তারাও সিনেমা থেকে দূরে রয়েছেন।

ঢাকার সিনেমার আরেক জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস। শতাধিক সিনেমা করেছেন তিনি। শাকিব খানের সঙ্গেই জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন ৭০টির মতো সিনেমায়। অপু বিশ্বাস এখন আগের থেকে কম সিনেমা করছেন। তার হাতে রয়েছে ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’।

বিদ্যা সিনহা মিম লাক্স-চ্যানেল আই সুপার স্টার প্রতিযোগিতা দিয়ে শোবিজ জগতে নাম লেখান। এই অভিনেত্রীও পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। তবে সুন্দরী এই নায়িকার সিনেমার ভাগ্য ততটা ভালো না।

পরীমণি সিনেমায় এসেই দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছেন। বেশকিছু দর্শকপ্রিয় সিনেমা রয়েছে তার। সবশেষ ‘স্বপ্নজাল’ মুক্তি পায় পরীমণির। মাঝে-মাঝে ওয়েব সিরিজও করেন তিনি। এখন তার ব্যস্ততা ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবনদ নিয়ে।

মাহিয়া মাহী এই সময়ের আরেক জনপ্রিয় নায়িকা। মাহী সিনেমায় এসেই বাজিমাত করেন। কিছু আলোচিত সিনেমা রয়েছে তারও।

ছোটপর্দা থেকে সিনেমায় আসা ববি এখন জনপ্রিয় নায়িকাদের একজন। ‘দেহরক্ষী’সহ আলোচিত কিছু সিনেমা রয়েছে তার।

বুবলির ভাগ্যটা শাকিবের সঙ্গে ওৎপ্রোতভাবে জড়িত। শোনা যাচ্ছে শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না বুবলীর। আর তাই বুবলীল ক্যারিয়ারও পড়তির দিকে।

নুসরাত ফারিয়া সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ‘অপারেশন সুন্দরবন’ নিয়ে। এ সময়ের অন্যতম সম্ভাবনাময়ী নায়িকা বলা হয় তাকে।

এদিকে, নাটক থেকে সিনেমায় এসে যারা সফলতার প্রমাণ দিয়েছেন, তাদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছেন জয়া আহসান। ‘গেরিলা’, ‘দেবী’ সহ কয়েকটি সিনেমা করে আলোচিত তিনি। পেয়েছেন একাধিকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এছাড়াও ভারতীয় বাংলা সিনেমায় ব্যস্ত তিনি। জয়ার ‘বিউটি সার্কাস’ ও ‘পেয়ারার সুবাস’ মুক্তির তালিকায় রয়েছে।

নাটক থেকে সিনেমায় এসে সফলতা পেয়েছেন এবং একটার পর একটা সিনেমা করে চলেছেন তিশা। তিশা দুবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। তার অভিনীত ‘হালদা’ দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। তার অভিনীত ‘শনিবার বিকেলে’ বিদেশে প্রশংসিত একটি সিনেমা। ‘ডুব’-এ অভিনয় করেও তিশা সবার প্রশংসা পেয়েছেন।

তিশা অভিনীত ‘ফাগুন হাওয়ায়’ দর্শকনন্দিত ও প্রশংসিত হয়েছে। ‘মায়াবতী’ তিশার মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ চলচ্চিত্র। এখন তিনি শুটিং করছেন ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ -এ।

জাকিয়া বারী মম ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ -এ করে সবার দৃষ্টি কাড়েন। তারও আগে ‘দারুচিনি দ্বীপ’ -এ অভিনয় করে বেশ সাড়া পান। তার অভিনীত ‘আলতা বানু’ সিনেমাটিও দেশ-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে।

এই সময়ের ঢাকাই সিনেমার আরেক নায়িকার নাম ‘আইরিন’। সম্প্রতি, তার ‘পদ্মার প্রেম’ মুক্তি পেয়েছে। নতুন আরেক নায়িকার নাম অধরা খান। সবশেষ নতুন নায়িকা জাহারা মিতু। আরও কয়েকজন নতুন নায়িকা এসেছেন। সময়ই বলে দেবে তারা কতোদিন টিকে থাকবেন সিনেমায়।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2018narayanganjtimes
Customized By NewsSmart