1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন

সিনেমায় বিশ্ব ভ্রমণ !

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • শুক্রবার, ২১ আগস্ট, ২০২০
  • ২১০

করোনার কারণে ঘরবন্দি, তাঁর মধ্যে বৃষ্টি। ছুটির দিনে যদি এমন আমেজ পাওয়া যায়, তাহলে সিনেমা তো দেখতেই হয়। সেক্ষেত্রে নিশ্চয়ই আপনি প্রথমে নতুন কিছু সিনেমার নাম খুঁজবেন। কি আসলো গেল কয়েক সপ্তাহ বা মাসে। তার মধ্য থেকে যদি কিছু না দেখে থাকেন, সেখান থেকে পছন্দ করতে চেষ্টা করবেন। কিন্তু আজ একটু অন্য প্ল্যান করতে পারেন। যান্ত্রিকতার এই জীবনে আমাদের অনেকেরই দৈনন্দিন কাজ ছকে আঁকা থাকে। নয়টা-পাঁচটা অফিস অথবা সারাদিনের ক্লান্তিকর ক্লাস। মাঝে মাঝে অনেকেরই হয়তো মনে হয়, ব্যাগ নিয়ে একা বেরিয়ে পড়ি কোথাও। অজানা কোনো এক পাহাড়ে ভোরবেলা শিশিরভেজা ঘাসে হাত বুলাই। কিন্তু এত ব্যস্ততার মাঝে ঘুরে আসার ফুরসত মেলেই বা ক`জনের!

ছকে আঁকা চাকরি হয়তো আপনাকে মাইনে দেয়, কিন্তু একটি ভালো ভ্রমণ আপনার অন্তর্নিহিত শক্তি যোগাবে। কিছুদিনের জন্য সব ব্যস্ততা ভুলে কয়েকদিনের জন্য কোথাও বেড়িয়ে আসলে শরীর ও মন দুটোই ফুরফুরে থাকে। আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন, যারা নতুন কোনো জায়গা ঘুরতে চেয়েছেন কোনো সিনেমা বা টিভি সিরিজ দেখে। চলুন, এমন কিছু সিনেমার কথা জেনে আসি যা আপনাকে ভ্রমণ করতে অনুপ্রেরণা দেবে। যা হয়তো আপনাকে উৎসাহ যোগাবে ঘরের বাহিরে আপনার পরবর্তী পদক্ষেপের, জীবন কে দেখার কিংবা সভ্যতার বিকাশ ও বৈভব কে জানার। তো দেখে না থাকলে একটুখানি জেনে নিতে পারি সিনেমাগেুলোর সম্পর্কে;

Into the Wild (2007)

বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষে ‘ক্রিস্টোফার ম্যাকক্যান্ডলেস’ নামের এক শিক্ষার্থী তার সঞ্চয় বিলিয়ে দিয়ে এবং  স্বাভাবিক জীবন ছেড়ে বেরিয়ে পড়ে বুনো জীবন আর প্রকৃতির পথে। সব ক্রেডিট কার্ড এবং পরিচয় পত্র নষ্ট করে আলাস্কার উদ্দেশ্যে তার এই দুই বছরের ভ্রমণের সময় সে জড়িয়ে যায় নানা রকম মানুষ ও জীবনের সাথে।  এবং এই ভ্রমণের পরিসমাপ্তি ঘটে নির্জন বনে একটি পরিত্যক্ত বাসে। বিষাক্ত বুনো আলুর বীজ খেয়ে সেই বাসে ক্রিস্টোফার মৃত্যুবরণ করার পূর্বে ডায়রিতে লিখে যায় তার এই আশ্চর্য ভ্রমণের নানাগল্প। সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত এই সিনেমাটির নির্মাতা শন পেন।  সিনেমাটি চিত্রনাট্য নির্মাণ করা হয় জন ক্রাকায়ের বই ‘ইন্টু দ্যা ওয়াইল্ড’ অবলম্বনে।

Baraka (1992)

পৃথিবী এবং তার মধ্যকার এই জীবন, প্রকৃতি, পাহাড়, আগ্নেয়গিরি, মানুষ, তাঁর ধর্ম, কৃষ্টি-কালচার, বেঁচে থাকা আর বেড়ে ওঠা, সভ্যতার সংকট কিংবা সঞ্চালন এইসবের মুগ্ধকর উপস্থাপন এই ডকুমেন্টারি সিনেমাটি। যা আপনাকে দেবে জীবনকে আর এই বিশ্বকে নতুন করে চেনার জানার চোখ। নন ন্যারেটিভ এই সিনেমাটির মূল আকর্ষণ সঙ্গীত আর দৃশ্যের উপস্থাপন। ১৪ মাস জুড়ে, ২৪ টি দেশ আর ৬ টি উপমহাদেশে এই সিনেমাটির দৃশ্যায়ন চলে। সিনেমাটির পরিচালক ‘ রন ফ্রিক’।

Samsara (2011)

সামসারা বিস্ময়কর এই পৃথিবীর পথে পথে মানুষের অভিজ্ঞতা ও জাদুকরি এক জীবনের গল্প বলবে আপনাকে। প্রকৃতি আর জীবন বৈচিত্র তুলে ধরার মাধ্যমে এই সিনেমা আপনাকে দেখাবে আধ্মাত্ববাদের গহীনে মানুষের বিচরণ আর অভিজ্ঞতা। পৃথিবী জুড়ে বৈচিত্রময় মানুষ আর তার জীবনকে দেখার স্বাদ আপনার মাঝেও মাথাচাড়া দিয়ে উঠবে। পাঁচ বছর যাবত পঁচিশটি দেশে এই সিনেমাটির শুটিং করা হয়। এই সিনেমাটিও পরিচালনা করেছেন ‘রন ফ্রিক’।

The Secret Life of Walter Mitty (2013)

ওয়াল্টার মিটি (বেন স্টিলার) লাইফ নামে একটি মাসিক পত্রিকায় কাজ করে। তার ঘটনাহীন জীবন দুঃসাহসিক কাজ আর বীরত্বের দিবাস্বপ্ন দিয়ে ভর্তি। একদিন বিখ্যাত এক ফটোগ্রাফার কিছু ছবির রিল পাঠায় ওয়াল্টারের পত্রিকায়, যেখানে বলা থাকে, ২৫ নাম্বার ছবিটি অবশ্যই লাগবে পত্রিকার কভারের জন্য। ওয়াল্টার সেই ছবিটি অনেক চেষ্টা করেও খুঁজে না পাওয়ায়, শেষমেশ সেই ফটোগ্রাফারের সন্ধানে বের হয়ে পড়ে। তার নিস্তেজ জীবনধারার বাইরে বেরিয়ে এসে, এক এক করে বিভিন্ন দুর্গম ঘুরতে থাকে সেই ফটোগ্রাফারের খোঁজে। গ্রিনল্যান্ড থেকে আইসল্যান্ডের পাহাড়ের পাশঘেষা রাস্তায় স্কেট করা থেকে শুরু করে আফগানিস্তানের বরফে ঢাকা পর্বতমালা পার হতে থাকে ওয়াল্টার। তার সাদামাটা জীবন যেন নিমেষে বদলে যায়।

বেন স্টিলারেরই পরিচালনা করা এই সিনেমাটি অনুপ্রেরণাদায়ক সুন্দর একটি গল্প! অসাধারণ আলোকচিত্রের সাথে মনোমুগ্ধকর আবহসঙ্গীত সিনেমা শেষ হবার পরও আপনার মন ভরিয়ে রাখবে।

Blue Skies, Green Waters, Red Earth (2013)

প্রেমিকাকে ফিরিয়ে আনার উদ্দেশ্যে কাশীর অনির্দিষ্ট যাত্রা এবং তার ভ্রমণ সঙ্গী বন্ধু সানি। কেরালা হতে  উড়িষ্যা, পুরী, কলকাতা, আসাম এবং নাগাল্যান্ড এর পথে পথে ভ্রমণের সময় নানা ঘটনা আর চড়াই উতরাই তাদের জীবনকে কিভাবে পরিবর্তন করে দেয় তা নিয়েই এই সিনেমা। সিনেমাটি ২০০৪ সালে চে গুভারার প্রথম দিকের জীবন ও ভ্রমণ নিয়ে নির্মিত ‘দ্যা মোটর সাইকেল ডাইরিজ’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মাণ করা মালায়ালাম ভাষার সিনেমা। সিনেমাটির পরিচালক ‘সামীর তাহির’।

One Week (2008)

ক্যান্সার আক্রান্ত বেন টেইলর প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণের পর  মোটর সাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়েন কানাডা হয়ে টরেন্টো থেকে ভ্যানকুভার দ্বীপ পর্যন্ত। যাত্রা পথের বিভিন্ন মানুষের সংস্পর্শ তাকে বাগদত্তা সামান্থার সাথে তার সম্পর্ক, চাকুরী এবং লেখক হবার বাসনা সব কিছুকে নতুনভাবে দেখার, পুনর্মূল্যায়ন করার দৃষ্টি দেয়। ভ্রমণ কালীন সময়ে কানাডার অপরূপ ভূচিত্র তার মধ্যে জীবনকে আরো গভীর ভাবে উপলব্ধি করার প্রেরণা দেয়। সিনেমাটির পরিচালক ‘মাইকেল ম্যাকগন’।

The Art of Travel (2008)

‘আর্ট অফ ট্রাভেল’ জীবনের সুন্দর সুখের গল্প। প্রেমিকার সাথে বিয়ে ভেঙ্গে যাওয়ার পর কননার লেইনের নিকারাগুয়ায় পাড়ি জমানো আর সেখানে সহযাত্রীদের সাথে তার এডভেঞ্চার এবং জীবনের দিকে দৃষ্টির আমূল পরিবর্তন নিয়েই এই চলচ্চিত্রটি। এই সিনেমার চোখ জুড়ানো দৃশ্যের সাথে মুগ্ধকর মনস্তত্ত্বের উপস্থাপন আপনাকে নিঃসন্দেহে পরবর্তী অভিযানের  অনুপ্রেরণা ও সাহস জাগাবে। সিনেমাটির পরিচালক ‘থমাস উলান’।

The Bucket List (2007)

ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত কার্টার চেম্বার্স এবং এডওয়ার্ড কোল জীবনে প্রথমবারের মতো হাসপাতালে এসে পরিচিত হয়। ওয়ার্ডে থাকা কালীন সময়ে কার্টার মৃত্যুর পূর্বে তার পূরণীয় ইচ্ছে গুলোকে লিপিবদ্ধ করেন। কিন্তু যখন জানতে পারলেন তার হাতে সময় আছে আর মাত্র এক বছর তখন কাগজ টা ছুঁড়ে ফেলে দিলে পরের দিন সকালে এডওয়ার্ড তা কুঁড়িয়ে পায়। এডওয়ার্ড কার্টারকে প্ররোচনা দিয়ে শুরু করে ইচ্ছে পূরণের  তাগিদে বিশ্ব ভ্রমণ। মুভিটির পরিচালক ‘রব রেইনের’।

Eat Pray Love (2010)

এলিজাবেথ গিলবার্ট, অন্য দশজন আধুনিক নারী যা চেয়ে থাকেন, তারও সব কিছুই ছিলো – স্বামী, সংসার, একটি বাড়ি আর সফল ক্যারিয়ার। কিন্তু ক্রমেই বুঝতে পারলেন এই জীবন তাকে ক্রমশ আরো হতাশ এবং দ্বিধান্বিত করে তুলছে। এরপর সদ্যই ডিভোর্সড হওয়া গিলবার্ট নিজেকে খুঁজে পেতে বিশ্বভ্রমনে নেমে পড়লেন, নিজের স্বাভাবিক জীবনকে ত্যাগ করে। খুঁজতে চাইলেন তিনি আসলে কি হতে চেয়েছিলেন জীবনে। সিনেমাটির পরিচালক ‘রিযান মুরফি’।

The Motorcycle Diaries (2004)

চে গুভেরার প্রথম জীবনের অভিযানের গল্প নিয়ে চমৎকার অনুপ্রেরণাদায়ক বায়োগ্রাফিক সিনেমা ‘দ্যা মোটর সাইকেল ডায়ারিজ’ এই ভ্রমণের মধ্য দিয়েই চে ক্রমে আবির্ভূত হন একজন আদর্শ সেনাপতি রূপে। মুভি জুড়ে প্যাটাগোনিয়া, বুয়েনোস আইরেস, কারাকাস, আতাকামা মরুভূমি সহ দক্ষিণ আমেরিকার অত্যাশ্চর্য প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের ঝলক এবং জীবন যাত্রা তুলে ধরা হয়েছে। সিনেমাটির পরিচালক ‘ওয়াল্টার স্যালেস’।

The Darjeeling Limited (2007)

পিতার মৃত্যুর পর তিন ভাই একত্রিত হলে ট্রেনে ভারত ভ্রমণ করতে আসে। যারা প্রায় দীর্ঘ এক বছর নিজেদের মধ্যে কোন যোগাযোগ রাখে নি। এই ভ্রমণের মধ্য দিয়ে তারা নিজেদের মধ্যকার বন্ধন জোড়া লাগাতে আর নিজেদেরকে খুঁজে পেতে চায়। বিল মুরে, অ্যাডরিন ব্রডির, জেসন শাওয়ার্টজম্যান এবং ওয়েন উইলসন সিনেমাটিতে অভিনয় করেন। সিনেমাটিতে ভারতের রঙ, রূপ,সাংস্কৃতিক সৌন্দর্য–বিশৃঙ্খলা এইসবের চমৎকার চিত্রায়ন করা হয়। সিনেমাটি পরিচালনা করেন ‘ওয়েস অ্যান্ডারসন’।

Zindagi Na Milegi Dobara (2011)

তিন বন্ধু কবির (অভয় দেওল), ইমরান (ফারহান আক্তার) এবং অর্জুন (হৃতিক রোশন) নিজেদের কলেজ জীবনেই ঠিক করে যে, বন্ধুর আগে বিয়ে করবে তার ব্যাচেলর ট্রিপে স্পেনে যাবে। এই ভ্রমণের মধ্যে আরেকটা শর্ত হচ্ছে, তিনজন একটি একটি করে দুঃসাহসিক কাজ ঠিক করে রেখেছে, যা অপর দুজনকে করতেই হবে, যত ভয়ংকরই হোক না কেন!

যথাসময়ে কবিরের ব্যাচেলর ট্রিপে তিন বন্ধু স্পেনে যাত্রা শুরু করে। এই ভ্রমণ তাদের নিয়ে যায় বার্সেলোনার কোস্টা ব্রাভা থেকে থেকে ভ্যালেন্সিয়ার টমাটিনা উৎসবে। সেখান থেকে সেভিয়াতে। পথে তাদের দেখা হয় লায়লার (ক্যাটরিনা কাইফ) সাথে, যে তাদের সঙ্গ দেয়।

তিনজনের সেই দুঃসাহসিক কাজগুলো করতে গিয়ে নিজেদের ভিতরের ভয় কে জয় করে তিন বন্ধু। তিনজন এরই জীবন পরিবর্তন হয় এই ভ্রমণে। জয়া আক্তারের পরিচালনায় হিন্দি ভাষার এই সিনেমাটি দেখলে আপনার একবার না একবার ইচ্ছা করবেই স্পেন ঘুরে আসতে। স্পেনের ভূদৃশ্য পরিচালক খুব সুন্দর করে ফুটিয়ে তুলেছেন বড় পর্দায়।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart