1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

রাশেদের শোকাহত পরিবারের পাশে না,গঞ্জ সদর ইউএনও

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০২০
  • ২৪৩

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ এক বিস্ফোরণে যে ৫ বাংলাদেশি নিহত হন তাদের একজন নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পাগলা নন্দলালপুর এলাকার মৃত হাফিজুর রহমানের ছেলে মোঃ রাশেদ। বিস্ফোরণের ঘটনার পর থেকে রাশেদ নিখোঁজ ছিলেন। ঘটনার ৫ দিন পর গত শনিবার দুপুরে বৈরুতের জলদ্বীপ এলাকার হারুন হাসপাতাল থেকে মৃত অবস্থায় তার লাশ সনাক্ত করেন নিহতের খালাতো ভাই জনি। জনিই রাশেদের পরিবারকে ফোন করে তার মৃত্যুর খবর জানায়। এরপরই শোকের মাতম শুরু হয় রাশেদের পরিবারে।
সোমবার বিকালে নিহত রাশেদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে তাদের ফতুল্লার পাগলার নন্দলালপুরের বাড়িতে ছুটে যান নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক। তিনি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তাদের পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
এ সময় নাহিদা বারিক বলেন, লেবাননে বিস্ফোরনে নিহত রাশেদের পরিবারের সাথে কথা বলেছি। তাদের যে দাবি রাশেদের লাশ দেশে ফিরিয়ে আনার সে ব্যাপারে আমরা নিহত পরিবারকে সকল ধরনের সহযোগিতা করবো। এখানে এসে ও কথা বলে জানতে পাড়লাম, এই ছেলের আয় দিয়ে তাদের সংসার চলতো। তার বাবা নেই, মাও বয়স্ক, আমরা এই পরিবারকে কিভাবে সহযোগিতা করলে তারা চলতে পারবে আমরা সেই ব্যবস্থা করে দিবো।
কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু বলেন, নিহতের পরিবারের জন্য আমাদের পক্ষথেকে যা যা করনীয় আছে আমরা সবকিছু করার চেষ্টা করবো। আমাদের ইউনিয়ন থেকে সকল প্রকার সুবিধার মাধ্যমে যত ধরনের সহযোগিতা করার দরকার আমরা করবো।
উল্লেখ্য, রৈরুতে গত ৪ আগস্ট ভয়াবহ দুটি বিস্ফেরণে বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর ২১ সদস্যসহ ১০৮ প্রবাসী আহত হন। এই বিস্ফোরণে মারা গেছেন পাঁচ বাংলাদেশী।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart