1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ১২:৩৩ অপরাহ্ন

আ,লীগ একযুগ ধরে ক্ষমতায় থাকলেও ফুলবাড়ী চুক্তির বাস্তবায়ন করে নাই : রফিউর রাব্বি

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০
  • ১৯৯

ফুলবাড়ী দিবস উপলক্ষে বুধবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদমিনারে সমাবেশ করেছে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি, নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা। সমাবেশর শুরুতে ফুলবাড়ী শহিদদের স্মরণে শহিদমিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে নিরবতা পালন করা হয়।
সমাবেশের সভাপতি ও সংগঠনের জেলা আহবায়ক রফিউর রাব্বি বলেন, আড়াই’শ বছর আগের ইস্ট-ইন্ডিয়া কোম্পানীর চক্রান্তের সাথে দেশীয়দের হাত মিলিয়ে চক্রান্ত করার ধারাবাহিকতা এখনো অব্যাহত আছে। আজো এখানে বিদেশী লুটেরা কোম্পানীর সাথে আতাত করে দেশের স্বার্থ বিকিয়ে দিয়ে জাতীয় সম্পদ লুন্ঠনের প্রকৃয়া ও চক্রান্ত অব্যাহত রয়েছে। সবসময়েই সরকারের সুবিধাভোগী ব্যক্তিবর্গ বিদেশীদের সাথে হাত মিলিয়ে দেশের স্বার্থ বিকিয়ে দিয়েছে।
তিনি বলেন, ১৯৯৭ সালে আওয়ামী লীগ শাসনামলে সরকার ব্রিটিশ কোম্পানী এশিয়া এনার্জির সাথে দেশে ভূগর্ভস্থ সম্পদ অনুসন্ধান চালানোর জন্য চুক্তি করেছিল। পরে ২০০৫ সালে সে কোম্পানী অনুসন্ধান শেষ করলে বিএনপি সরকার ৩০ বছরের জন্য উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের জন্য এশিয়া এনার্জির সাথে নতুন করে চুক্তি করে। সে চুক্তির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী উত্তোলিত কয়লার পুরোটার অর্থাৎ পুরো কয়লাখনির মালিক হবে এশিয়া এনার্জি। উত্তোলিত কয়লা রপ্তানি অথবা বিক্রয় করার পুরো অধিকার থাকবে এশিয়া এনার্জির। উত্তোলিত কয়লার মাত্র ৮ শতাংশ রয়্যালটি হিসেবে পাবে বাংলাদেশ। সরকারের আত্মঘাতি ও দেশ বিরোধী সে সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সেদিন ফুলবাড়ী ও দিনাজপুরের সকল জনগণ প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। সেই সময়ের বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, তারা ক্ষমতায় গেলে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের বিরুদ্ধে আইন করবেন এবং ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন করবেন। অথচ আওয়ামী লীগ একযুগ ধরে ক্ষমতায় থাকলেও আজো পর্যন্ত ফুলবাড়ী চুক্তির বাস্তবায়ন করে নাই এবং উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের বিপক্ষে কোনও আইন পাশ করে নাই। অপরদিকে এশিয়া এনার্জি তাদের নাম বদল করে আজকে আবারো দেশে ও বিদেশে ‘জিসিএম’ নাম নিয়ে বিভিন্ন অপ-তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। বিদেশে তাদের শেয়ার বিক্রী করে চলেছে। তিনি এশিয়া এনার্জী (জিসিএম) কে দেশ থেকে বহিস্কার, দালাল চক্রকে আইনের আওতায় এনে ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন, চীন-ভারত-দেশি কোম্পানীর মাধ্যমে ফুলবাড়ী বড়পুকুরিয়ায় উন্মুক্ত খনি করার চক্রান্ত বাতিল, রামপার-রূপপুরসহ প্রাণবিনাশী স্বাস্থ্যঝুঁকিপূর্ণ প্রকল্প বাতিল করে করোনাভাইরাস মোকাবেলাসহ সার্বজনীনস্বাস্থ্যসেবা খাতে বরাদ্ধ বৃদ্ধির দাবি জানান।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, ২০০৬ সালের ২৬ আগষ্ট ফুলবাড়ী ও এর পার্শবর্তী অঞ্চলের লক্ষজনতা এশিয়া এনার্জির বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধের গড়ে তুলেছিল। সরকার এ গণআন্দোলনকে প্রতিহত করতে পুলিশ ও বিডিআর দিয়ে নিরীহ জনগণের উপর নির্বিচারে গুলি চালিয়ে তরিকুল, সালেকিন, আল আমিন সহ ছয় জনকে হত্যা করেছিল। ২৬ থেকে ৩০ আগষ্ট পর্যন্ত চলা আন্দোলনের সময় ফুলবাড়ীতে কোনও প্রশাসন ও এশিয়া এনার্জির কোনও কর্মকর্তা ছিল না। সবাই পালিয়ে গিয়েছিল। জনগণের সে প্রতিরোধের কারণে সরকার তখন উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের সিদ্ধান্ত বাতিল করে আন্দোলনরত জনগণ ও জাতীয় কমিটির সাথে ৬ দফা চুক্তি করতে বাধ্যহয়েছিল। এশিয়া এনার্জির সাথে সকল চুক্তি বাতিল করে তাদেরকে দেশ থেকে বহিস্কারের সিদ্ধন্ত নেয়া হয়েছিল।
সংগঠনের সদস্য সচিব ধীমান সাহা জুয়েলের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাসদের জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, সিপিবি জেলা সংগঠক বিমল কান্তি দাস, গণসংহতি আন্দোলনের জেলা সমন্বয়ক তরিকুল সুজন, ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সভাপতি হাফিজুর রহমান, ন্যাপ জেলা সম্পাদক আওলাদ হোসেন, বিপÍবী ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান টিপু, সামাজিক সংগঠন সমমনার সভাপতি দুলাল সাহা ও নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক শাহীন মাহমুদ।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বা ব্যবহার করা  সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.narayanganjtimes.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Customized By NewsSmart