1. admin@narayanganjtimes.com : ntimes :
  2. ahmedshawon75@gmail.com : ahmed shawon : ahmed shawon
সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৩৬ অপরাহ্ন

সোনারগাঁয়ে ১৭ বছর পর ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে দৌড় ঝাঁপ

নারায়ণগঞ্জ টাইমস :
  • বুধবার, ২৯ জুলাই, ২০২০
  • ১৭৬

সোনারগাঁয়ে দীর্ঘ ১৭ বছর পর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কমিটি গঠন নিয়ে কেন্দ্রে দৌড় ঝাপ শুরু করেছে কমিটির সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ২০০৩ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠনের পর দীর্ঘ দেড় যুগ কেটে গেলেও নতুন করে আর কোন কমিটি গঠন করা হয়নি। ১৭ বছর আগে যাদের দিয়ে ছাত্রদলের কমিটি গঠন করা হয়েছিল তারা সবাই এখন উপজেলা বিএনপির মূল কমিটি ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃত্বে চলে গেছেন। ফলে ছাত্রদলের কমিটি ছাড়াই চলছে সোনারগাঁ বিএনপির কর্মকান্ড।
সম্প্রতি সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি গঠনের ব্যপারে কেন্দ্র থেকে নেতাকর্মীদের ইঙ্গিত দেয়ার পর নড়েচড়ে বসেছেন ছাত্রদলের পদ পদবীতে আসার জন্য উন্মূখ স্থানীয় নেতাকর্মীরা। দীর্ঘদিন পর সোনারগাঁয়ে উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠন নিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দ উচ্ছাস দেখা গেলেও পাশাপাশি দেখা দিয়েছে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা ।
অনেকের আশংকা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে এ কমিটি চলে যেতে পারে অযোগ্যদের হাতে। যারা দীর্ঘদিন যাবত দলের জন্য নিবেদিত ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, তৃণমূলের রাজনীতিকে চাঙ্গা করে রেখেছেন তাছাড়া জেল জুলুমের শিকার হয়েছেন কমিটিতে তারা যদি স্থান না পায় তাহলে এ কমিটি গঠন করে কোন ফল হবে না বলে মনে করছেন ত্যাগী নেতাকর্মীরা।

সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রদলের আসন্ন কমিটিতে আহবায়ক ও সদস্য সচিব পদে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে রয়েছেন জাকারিয়া ভূঁইয়া, রবিউল প্রধান, মো. শাহজালাল, মাসুদ রানা বাবু, বায়জিদ ভূঁইয়া, আমিনুল ইসলাম, মোঃ জহিরুল ইসলাম জনি, জান্নাতুল ফেরদৌস সানি, মোঃ আবু তাহের রিফাত, মোঃ সাইফুল ইসলাম জিকু, আরিফুল ইসলাম রাজ, সাইফুল ইসলাম, মোঃ সাকিল আহম্মেদ ভূঁইয়া ও আলমগীর হোসাইন খান।

সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক প্রার্থী জাকারিয়া ভূঁইয়া বলেন, আমরা যারা দলের জন্য মাঠে কাজ করেছি আমরা চাই দল আমাদের সঠিক মূল্যায়ন করবে। যদি যোগ্যরা কমিটিতে স্থান না পায় তাহলে কেউ ভবিষ্যতে রাজনীতিতে আসতে উৎসাহিত হবে না।

আরেক আহবায়ক প্রার্থী মাসুদ রানা বাবু বলেন, বিএনপির সকল আন্দোলন কর্মসূচিতে সক্রিয়ভাবে মাঠে ছিলাম। ভবিষ্যতেও থাকবো আসন্ন ছাত্রদলের কমিটিতে ত্যাগী ও পরীক্ষিতরা স্থান পাবে এটাই আশা করছি।

আহবায়ক প্রার্থী মোহাম্মদ শাহ্ জালাল বলেন, আমি ২০০৮ সাল থেকে ছাত্র রাজনীতির সাথে জড়িত ছাত্রদলকে সুসংগঠিত করার লক্ষে দীর্ঘ দিন দলের সার্থে নিজের জীবন বাজি রেখে দেশ মাতার মুক্তি গণতন্ত্র পূর্ণ উদ্বার ও বিএনপির ডাকা সকল সভা সমাবেশ বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে আসছি,দল আমাকে সঠিক মূল্যায়ন করলে রাজপথে আমি আমার নিজের জীবন বিসর্জন দিতে ও সর্বদা প্রস্তুত আছি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলা ছাত্রদলের এক আহবায়ক পদ প্রার্থী বলেন, সোনারগাঁ উপজেলা বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের কমিটিগুলোতে বরাবরই ত্যাগী নেতাকর্মীরা বঞ্চিত হয়েছেন। বিগত উপজেলা যুবদলের কমিটিতেও একই ঘটনা ঘটেছে। আর্থিক সুবিধা নিয়ে অযোগ্যদের দিয়ে এ কমিটিগুলো করা হয়েছে তাই উপজেলা ছাত্রদলের আসন্ন কমিটি নিয়েও শংকায় রয়েছি। তাছাড়া উপজেলা বিএনপির গ্রুপিংয়ের প্রভাবও এ কমিটির উপর পড়তে পারে।

১৭ বছর আগে উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে সাধারণ সম্পদক নির্বাচিত হওয়া ফারুক আহমেদ তপন জানান, ১৭ বছরে যদি ধারাবাহিক ভাবে কমিটি হতো তাহলে আরো অনেক নতুন নেতৃত্ব তৈরি হতো কিন্তু বিভিন্ন কারণে কমিটি করা সম্ভব হয়নি। বর্তমানে যে কমিটি হচ্ছে তা অবশ্যই যোগ্যদের দিয়ে করতে হবে না হলে কমিটি করে কোন লাভ হবে না।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মো. খাইরুল ইসলাম সজিব জানান, কেন্দ্র থেকে আমাদেরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে দ্রুত সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রদলের সোনারগাঁয়ে ১৭ বছর পর ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে দৌড় ঝাঁপ কমিটি করার জন্য। আমরা সে লক্ষেই কাজ করছি ইতোমধ্যে আমরা ২১ সদস্যের আহবায়ক কমিটির জন্য সম্ভাব্য প্রার্থীদের নামের তালিকা তৈরি করেছি। হয়তো চলতি মাসেই কমিটি ঘোষনা করা হবে। যোগ্য ও শিক্ষিতদের সমন্বয়েই এ কমিটি করা হবে। আর্থিক সুবিধা নিয়ে কমিটি করার কোন সুযোগ নেই।

সোনারগাঁ উপজেলা বিএনপির সভাপতি খন্দকার আবু জাফর জানান, দীর্ঘদিন পরে হলেও সোনারগাঁয়ে ছাত্রদলের কমিটি হচ্ছে এটা স্বস্থির সংবাদ। তবে যারা এ কমিটির দায়িত্বে আছেন তারা যেন সঠিক ব্যক্তিকে নেতৃত্বে নিয়ে আসেন এতে কমিটি শক্তিশালী হবে। আর্থিক সুবিধা নিয়ে কিংবা স্থানীয় গ্রুপিংয়ের সুযোগ নিয়ে কেউ যদি এক পেশে কমিটি করার চেষ্টা করে তাহলে সাধারণ নেতাকর্মীরা সে কমিটি কখনোই মেনে নেবে না বলে আমি মনে করি।

নিউজটি আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2018narayanganjtimes
Customized By NewsSmart